Press "Enter" to skip to content

ব্রেকিং খবর: রামমন্দিরের জন্য কানুন আনার প্রক্রিয়া শুরু! রাজ্যসভায় পেশ করা হবে বিল।

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা বিগত দিনে নিয়ে ৩ মিনিটের শুনানি করে যে তামাশা করেছিলেন তাতে দেশের সমস্থ হিন্দুদের মধ্যে হতাশা ও আক্রোশ সৃষ্টি হয়েছিল। বিজেপিও এই বিষয়টি অনুভব করেছিল। আমরা আমাদের পাঠকদের জানিয়েছিলাম যে সরকার শীতকালীন অধিবেশনে ের উপর সাংসদে বিল পেশ করবে। এরপর যোগী আদিত্যানাথ আদালতের কার্যবাহীকে অন্যায় বলে দাবি করেছিলেন। গতকাল মোহন ভাগবত রামমন্দিরের জন্য আধিকারিকভাবে সরকারকে কার্যবাহী করার জন্য বলেন। আর এখন একটা বড়ো খবর সামনে আসছে, প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী রাজ্যসভায় রামমন্দিরের উপর বিল আনার জন্য কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে।

এই বিল RSS ঘনিষ্ট রাজ্যসভা সাংসদ রাকেশ সিনহা নিয়ে আসবেন। উনি এই বিল প্রাইভেট মেম্বার বিল হিসেবে পেশ করবেন। রাজ্যসভায় এই বিল উপস্থাপনার পরেই এটা সাফ হয়ে যাবে যে কারা মন্দির নির্মাণের পক্ষে আর কারা বিরুদ্ধে। এরপর বিলকে লোকসভায় আনা হবে এবং কার্যবাহী করা হবে। সরকারের কাছে অনেকগুলি বিকল্প রয়েছে যেখানে দুই সাংসদের যৌথ অধিবেশনের ডাকা ছাড়াও অর্ডিন্যান্স জারির পথ রয়েছে।

যোগী আদিত্যানাথ বলেছেন দিপাবলীতে খুশির খবর দেওয়া হবে। মনে করা হচ্ছে যোগী আদিত্যানাথ রামমন্দির নির্মানের নিশ্চয়তার খবর দেবেন। এটা নিশ্চিত যে রামমন্দিরের বিষয়ে আদালতের বিচারপতিরা কোনোভাবেই রায় দিতে রাজি নয় এটা বুঝেই সরকার কাজ করবে। তবে বিল পেশ করা হবে কিনা এই নিয়ে বিজেপির মধ্যে চিন্তাভাবনা চলছিল কিন্তু যোগী আদিত্যানাথ চাপে সরকার দৃঢ় হয়েছে।

জানিয়ে দি, রামমন্দিরের ইস্যুতে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিগণ মামলা ২০১৯ পর্যন্ত টেনে নিয়ে যেতে চাইছেন। এই কারণে মাত্র তিন মিনিট মামলা ৩ মাস পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। অনেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই বিষয়ে রাজনীতি হাত রয়েছে বলে দাবি করেছেন।