Press "Enter" to skip to content

টপ কোয়ালিটির পাথর পৌঁছানো হচ্ছে অযোধ্যায় ! এবার খুব শীঘ্রই পুরো বিশ্ব দেখবে বিরাট রামমন্দির – বললেন যোগী আদিত্যনাথ

অযোধ্যায় নির্মাণের কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। শীঘ্রই মন্দিরকে হয় সুপ্রিম কোর্ট নতুবা সরকার গ্রীন সিগন্যাল দেবে এটাও নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে। ৩ দিক থেকে এই সমস্তকিছুর সংকেত পাওয়া যাচ্ছে। হয় সুপ্রিম কোর্ট মন্দিরের পক্ষে রায় দেবে, নাহলে কেন্দ্র সরকার অর্ডিন্যান্স পাশ করাবে অথবা উত্তরপ্রদেশ সরকার ভূমিঅধিগ্রহণ করে নেবে। এই ৩ এর মধ্যে এক পক্ষ বড়ো মন্তব্য দিয়েছে যার পর পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে উত্তরপ্রদেশে কিছু মাসের মধ্যেই হতে চলেছে।

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যানাথ বলেছেন এবার রাম মন্দির নির্মাণের কাজ শুরু করে দেওয়া হোক, খুব শীঘ্রই ভব্য রাম মন্দির চোখের সামনে হবে এবং এমন মন্দির তৈরি করা হবে যেটা দেখে পুজো বিশ্ব দেশে আশ্চর্যচকিত হবে। যোগী আদিত্যানাথের এই মন্তব্যে এর পর হিন্দু সংগঠন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ রাজস্থান থেকে উচ্চ মানের পাথর এনে রামমন্দির কার্যশালায় রাখা শুরু করেছে।

এই পাথরের মধ্যে গ্রানাইট, মার্বেলের মতো পাথর বেশি রয়েছে। অবশ্য আগে থেকেও বহু পাথর জমা করা হয়েছে যেগুলোর উপর কারুকার্য করা হচ্ছে। রাম মন্দিরের নকশা আগে থেকেই প্রস্তুত শুধু মাত্র এবার পাথর দাঁড় করিয়ে অন্তিম চরণের মূল্যবান কাজ করতে হবে। নীচের ছবিতে আপনারা রাম মন্দিরের নকশা দেখতে পাচ্ছেন ঠিক এই স্বরূপেই রাম মন্দির তৈরি করা হবে। রাম মন্দির খুবই বিশাল ও সুন্দর গঠনের তৈরী করা হবে, কিন্তু তার অর্থ এই নয় যে মন্দির তৈরি করতে মাসের পর মাস সময় লেগে যাবে।

আপনাদের জানিয়ে দি ভারতের কলঙ্ক বাবরি মসজিদ খুবই মজবুত ও বিশাল ছিল কিন্তু রামভক্তরা মাত্র কিছু সময়ের মধ্যে জয় শ্রী রাম শ্লোগান দিয়ে মেশিন ছাড়াই ভেঙে মাটির সাথে সমতল করে দিয়েছিল। এবারে মন্দির তৈরির সময় শ্রী রামের ভক্তরা আবার রামনাম নিয়ে রাতারাতি মন্দির তৈরি করে দেবে বলে মনে করা হচ্ছে। এমনিতেই এখন রাম মন্দির তৈরির কাজ চলছে, গ্রীন সিগন্যাল পাওয়া মাত্র অন্তিম চরণের কাজ “জয় শ্রী রাম” এর নাম নিয়ে সম্পূর্ণ করা হবে।