Press "Enter" to skip to content

পেট্রোল ডিজেলের দাম কমাল কেন্দ্র! অন্য রাজ্যের তুলনায় দ্বিগুণ দাম কমলো বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে।

নিয়ে স্বস্তির খবর আসছে দেশের জনগণের জন্য। জানিয়ে দি, ও ডিজেলের দাম নিয়ে বিরোধীরা শুধুমাত্র কেন্দ্রকে দোষারোপ করলেও রাজ্য সরকারগুলি তেলের দামের উপর নিজের নিজের মতো করে ট্যাক্স লাগিয়ে দেয়। তবে বিগত কিছুমাস ধরে আন্তর্জাতিক কারণে তেলের দাম বৃদ্ধির জন্য মানুষের সমস্যা বাড়লেও এখন 2 টি বড় সুখবর সামনে আসছে। কেন্দ্র সরকার পুরো দেশে তেলের দামের উপর ২ টাকা ৫০ পয়সা কমতি করেছে। তবে শুধু এটাই নয়, দেশে বিজেপি শাসিত যতগুলি রাজ্য রয়েছে সবগুলোতেই ের উপর আরো ২ টাকা ৫০ পয়সা কমতি করেছে। অর্থাৎ কেন্দ্র পুরো দেশে ২ টাকা ৫০ পয়সা একই সাথে বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির সরকার ২ টাকা ৫০ পয়সা ছাড় দিয়েছে।

অর্থাৎ দেশের সমস্ত রাজ্য এ কেন্দ্র পেট্রোল, ডিজেলের দামের উপর ২ টাকা ৫০ পয়সা ছাড় দিয়েছে একইসাথে বিজেপি শাসিত রাজ্যের জনগণ দামের উপর মোট ৫ টাকা ছাড় পাবে। উদাহরণস্বরূপ উত্তরপ্রদেশ, গুজরাট, মহারাষ্ট্র এর মতো যেখানেই বিজেপি সরকার রয়েছে সেখানে ৫ টাকা ছাড়ের ঘোষণা হয়ে গেছে। বাকি রাজ্যগুলিতে যেখানে বিজেপি সরকার নেই সেখানে ২ টাকা ৫০ পয়সা ছাড়া আর কোনো ছাড়ের কথা ঘোষণা করেন রাজ্য সরকারগুলি।

অরুণ জেটলি

বিজেপি শাসিত রাজ্যসরকারগুলি জনগণকে বেশি সস্তি দিতে সক্ষম হয়েছে এখন দেখা বাকি যে বাকি কংগ্রেস, TMC, বাফ্রন্ট শাসিত রাজ্যগুলি কি পদক্ষেপ নেয়। জানিয়ে দি কেন্দ্র সরকার নিজেদের ট্যাক্স কমিয়ে নেওয়ার সাথে সাথে তেল কোম্পানিদের সাথে কথা বলার পর এই পরিমান ছাড় দিতে সক্ষম হবে। এই ফলে সরকারের বহু কোটি টাকা আয় কমে যাবে বলেও মনে করা হচ্ছে।

মোদী আমলে জাতীয় সড়ক নির্মাণ থেকে শুরু করে সুরক্ষা ব্যবস্থায় যে ব্যাপক হারে উন্নতি হচ্ছিল তার সমস্তটাই ট্যাক্সের টাকায় হয়। কিন্তু জনগণের স্বার্থে মোদী সরকার কেন্দ্রের আয় কমিয়ে জনগণকে স্বস্তি দিতে এই পদক্ষেপ নিয়েছে।এমনিতেই কিছু মাস পর থেকে ভারতীয় মুদ্রায় তেল কেন হবে যার জন্য দামের উপর লাগাম লেগে যাবে বলেই মনে করছে বিশেষজ্ঞরা। তবে তার আগেই জনগণকে স্বস্তি দিতে আয় কমিয়ে তেলের দামে ছাড় দিলো মোদী সরকার।এখন দেখার কেন্দ্রের সাথে হাত মিলিয়ে বাকি কংগ্রেস বা বামপন্থী শাসিত রাজ্য জনগণকে বিশেষ বাড়তি কোনো স্বস্তি দেয় কিনা।