Press "Enter" to skip to content

RTI এর তথ্য! ভোজনের খরচ নিজের স্যালারির টাকায় মেটান মোদী, করেন না সরকারি টাকার প্রয়োগ।

মোদী ক্ষমতায় আসার পর থেকে দেশদ্রোহী শক্তিগুলোর মেরুদন্ড ভাঙতে শুরু করেছেন। আর এই কারণে অস্বস্থিতে পড়েছে বামপন্থী, তথাকথিত সেকুলার থেকে শুরু করে কংগ্রেস, কট্টরপন্থী ও মিশনারীরা। মোদীকে ক্ষমতা থেকে সরানোর জন্য সমগ্ৰ শক্তি  লাগিয়ে দিয়েছে এই বিরোধি শক্তিগুলি। সোশ্যাল মিডিয়ায় অপপ্রচার চালানো হোক বা দেশের দালাল মিডিয়ার সহায়তায় মিথ্যা এজেন্ডা চালানো হোক, কোনো কিছুতেই পিছিয়ে নেই বিরোধী শক্তি। কংগ্রেস it cell ও বামপন্থীরা প্রায় প্রচার করে যে মোদীর খাওয়া দাওয়ার উপর নাকি প্রচুর টাকা খরচ হয়।  কোটি কোটি টাকার সরকারি ধন মোদীর খাওয়া দাওয়ার জন্য খরচ করা হয়, এমন দাবি করে কট্টরপন্থী, বামপন্থী ও কংগ্রেসীরা। তবে সম্প্রতি RTI এই বিষয়ে বড়ো তথ্য ফাঁস করেছে যা বামপন্থী ও কট্টরপন্থীদের হুশ উড়িয়ে দেবে।

RTI এর তথ্য অনুযায়ী, নিজের ভোজনের খরচ সরকারি অর্থে চালান না বরং নিজের খাওয়া দাওয়ার খরচ নিজের বেতনের টাকাতেই করেন। অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রী মোদীর খাওয়া দাওয়ার খরচ ভারত সরকার নয়, মোদীজি নিজের বেতনের টাকায় মেটান। সাগর নামক এক ব্যাক্তি তার জানার অধিকার প্রসঙ্গে RTI এর কাছে প্রধানমন্ত্রী মোদীর খাওয়া দাওয়ার ব্যাপারে প্রশ্ন করেছিল। যার উত্তরে RTI এই তথ্য ফাঁস করেছে।

RTI এর থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী মোদী খিচুড়ি ও রুটি খুব পছন্দ করেন। ভারতীয় খাদ্য ছাড়া অন্য কোনো খাদ্য প্রধানমন্ত্রী পছন্দ করেন না। প্রধানমন্ত্রী মোদী শুদ্ধ শাকাহারি এবং উনি বেশিরভাগ সময় গুজরাটি খাবারের প্রতি ঝোঁক দেখান। RTI থেকে এটাও জানা গেছে যে 7 রেসকোর্সে প্রধানমন্ত্রীর কিচেনের যা খরচ হয় তাও তিনি নিজেই মেটান। প্রধানমন্ত্রী মোদী খাওয়া দাওয়ার খরচকে ব্যক্তিগত খরচ মনে করেন।

এর আগে RTI থেকে এটাও জানা গেছিলো যে প্রধানমন্ত্রী মোদী শপদ গ্রহনের পর থেকে এখনো অবধি এক দিনের জন্যেও ছুটি নেননি। এমনকি প্রধানমন্ত্রী মোদীর পোশাকের খরচও ভারত সরকারের বদলে উনি নিজেই উঠান। প্রধানমন্ত্রী মোদী আজ অবধি যত পোশাক পরেছেন তার কোনোটাই ভারত সরকারের অর্থে কেন নয়, সবকটা নিজের বেতনের টাকায় কেন অথবা উপহারের প্রাপ্ত পোশাক।

10 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.