Press "Enter" to skip to content

আসাউদ্দিন ওয়েসি নতুন জিন্না!! সেনাকে ধর্মের সাথে টেনে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করায় আসাউদ্দিনকে আক্রমণ করলেন সম্বিত পাত্র।

২০১৯ নির্বাচন সামনে আসে সাথে সাথে দেশের রাজনীতি উথাল হতে শুরু করেছে। প্রত্যেক রাজনৈতিক দল নিজের নিজের ভোটব্যাঙ্কে তৈরির জন্য মাঠে নেমে পড়েছে। একদিকে যেখানে কংগ্রেস ‘হিন্দু পাকিস্থান’ এর মতো দেশবিরোধী মন্তব্য করে এক সম্প্রদায়কে তোষণ করা শুরু করেছে তেমনি AIMIM এর প্রধান আসাউদ্দিন ওয়েসিও আবার সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করা শুরু করেছে। AIMIM দেশের এমন একটা রাজনৈতিক দল যারা শুধুমাত্র মুসলিম ভোটব্যাঙ্ক এর জন্য রাজনীতি করে এবং খোলাখুলি হিন্দুদের মারার হুমকি দেয়।

আসাউদ্দিন ওয়েসীর ভাই আকবর উদ্দিন খোলাখুলি সাম্প্রদায়িক কথা বলে হিন্দুদের শেষ করার হুমকি দিয়েছিলেন। এবার আরো একবার ভোট সামনে আসতেই সাম্প্রদায়িক রাজনীতি শুরু করেছেন। সম্প্রতি একসভায় ভারতের সেনাবাহিনী ও বিএসএফ নিয়ে রাজনীতি করে বসেন। ওয়েসি বলেন ভারতীয় সেনাবাহিনীতে ৪ বছরে কতজন মুসলিমকে সিআরপিএফ এ নিযুক্ত করেছে সরকার? ওয়েসি সেনাবাহিনীতে মুসলিম সংখ্যা কথা তুলে ধর্মের রাজনীতি শুরু করেন। এর প্রতিবাদে অবশ্য দেশের সেনা জানিয়েছে যে সেনাকে নিয়ে ধর্ম ও রাজনীতির খেলা খেলবেন না। আমাদের একটাই পরিচয় আমরা ভারতীয় সেনা। আর বিষয় নিয়েই গতকাল এক ডিবেটে বিজেপি এর প্রবক্তা ে আসাউদ্দিন ওয়েসীর নিন্দা করেন এবং তাকে নতুন জিন্না বলেও কটাক্ষ করেন।আসলে যেভাবে ধর্মের নাম দেশকে বিভক্ত করেছিল সেইভাবেই দেশকে ধর্মের নাম ভেতর থেকে ভেঙে ফেলছেন সেই ভিত্তিতেই আসাউদ্দিন ওয়েসিকে আক্রমণ করেন সম্বিত পাত্র।

তিনি বলেন মাতৃভূমি রক্ষা পরমধর্ম এখানে ওয়েসি রাজনীতি শুরু করেছেন যা সম্পুর্নভাবে সাম্প্রদায়িকতার উস্কানি দেয়। ডিবেটে এক মৌলানা আসাউদ্দিন ওয়েসীর পক্ষ নিয়ে বলছিলেন তাকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, আজ যে মৌলানা সেনায় অংশ চাই বলে রাজনীতি সামপ্রদিকতার রাজনীতি করছে তারাই কাল আরো একটা পাকিস্থান চাই বলে দাবি জানাছিল। সেনা দেশের সবার, হিন্দু,মুসলিম,শিখ বা খ্রিস্টানদের নয় তাই সেনাকে ধর্ম নিয়ে টানা মানে ভণ্ডামি করা। দেখুন ভিডিও-