Press "Enter" to skip to content

প্রধানমন্ত্রী মোদীর কাছে বিশেষ দাবি করেছিল গ্রামবাসীরা! দাবি পূরণ করে গ্রামবাসীর মন জয় করলেন মোদী সরকার।

সম্প্রতি মোদী চীনের কাছ ঘেঁষা ভারতীয় গ্রামগুলির পরিক্রমা করার জন্য উত্তরখন্ড এর উদ্দেশ্য বেরিয়ে ছিলেন। সেই সময় স্থানীয় গ্রামবাসীরা প্রধানমন্ত্রীকে কাছে পেয়ে তাদের পুরানো ব্যাথার কথা খুলে বলেছিলেন। গ্রামবাসীরা জানিয়েছিলেন ১৯৬২ সালে ভারত চীন যুদ্ধের সময় তাদেরকে তাদের আসল গ্রাম থেকে নির্বাসিত করা হয়েছিল। গ্রামবাসীরা প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করেন এই ব্যাপারে কিছু পদক্ষেপ নিতে তথা জমির বন্দোবস্ত করতে। প্রধানমন্ত্রী মোদী খুবই হ্যাঁবাচক ভঙ্গিতে গামবাসীর দাবি শুনেছিলেন এবং তাদেরকে ক্ষতি পূরণ করার কথা বলেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী মোদীর আশার খুশি হয়ে গ্রামবাসীরা প্রধানমন্ত্রীকে শাল এবং টুপি উপহার দিয়েছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী মোদীর হৃদয় কতটা বড়ো তার প্রমান এখানেই পাওয়া যায় যখন প্রধানমন্ত্রী নিজে গ্রামবাসীদের কাছে এগিয়ে আসেন তাদের সমস্যা জানার জন্য। জানিয়ে দি, গ্রামবাসীদের দেখে প্রধানমন্ত্রী খুবই আনন্দ প্রকাশ করেছিলেন। গ্রামবাসীরা হারসিল গ্রাম হয়ে বাগরি পর্যন্ত সড়ক নির্মাণের অনুরোধ করেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

গ্রামবাসীরা প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করেন গ্রামে কেন্দ্রীয় বিদ্যালয় নির্মাণ করার জন্য। উল্লেখ্য ব্যাপার প্রধানমন্ত্রী মোদী এই ঘটনায় অন্যান নেতাদের মতো পাবলিসিটি স্টান্ট করেননি বরং খুব শান্তভাবে গ্রামবাসীদের ডেকে তাদের সমস্যা জানার চেষ্টা করেন। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী হারসিল গ্রামের বাসিন্দারা তাদের ক্ষতিপূরণ পেয়ে গেছেন এবং সরকার বাকি গ্রামগুলির বাসিন্দাদের জমি গেছে কিনা সেই নিয়েও খোঁজ নিচ্ছে।

এক আধিকারিক বলেছেন মোদী সরকার সকলকে তাদের পুরানো প্রাপ ফিরিয়ে দেওয়ার উপর কাজ শুরু করে দিয়েছে যার প্রথম শুরু উত্তরখণ্ডের এই গ্রাম থেকে হয়েছিল। ভারত চীন যুদ্ধের সময় যে গ্রামবাসীর ক্ষতি হয়েছিল তাদের ক্ষতিপূরণ দেয়নি কংগ্রেস সরকার। তবে মোদী সরকার ক্ষতিপূরণ দেওয়ার উপর কাজ শুরু করেছে।