Press "Enter" to skip to content

পাঁচ একর জমির খয়রাতি চাইনা, সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্ত মেনে নিতেও পারব নাঃ ওয়াইসি

নয়া দিল্লীঃ সুপ্রিম কোর্ট (supreme court)অযোধ্যা (Ayodhya) বিবাদ মামলায় দীর্ঘ ৪০ দিন শুনানি চলার পর আজ শনিবার ঐতিহাসিক রায় দেয়। কোর্ট নিজের সিদ্ধান্তে বলে, অযোধ্যায় বিতর্কিত জমিতে রাম মন্দির হবে। আর মুসলিম পক্ষকে অযোধ্যাতে পাঁচ একর জমি আলাদা করে দেওয়া হবে, সেখানে তাঁরা স্বাছন্দে বাবরি মসজিদ (Babri Masjid) বানাতে পারবে। রাম মন্দির (Ram Mandir) নির্মাণের জন্য কেন্দ্র সরকারকে তিন মাসের সময় দিয়ে ট্রাস্ট বানানোর আদেশ দেওয়া হয়ে সুপ্রিম কোর্টের তরফ থেকে। প্রধান বিচারক রঞ্জন গগৈর (Ranjan Gogoi) নেতৃত্বে পাঁচ বিচারকের বেঞ্চ সর্বসম্মতিতে এই সিদ্ধান্ত শুনিয়েছে।

অযোধ্যা মামলার রায় আসার পর AIMIM চীফ আসাদউদ্দিন ওয়াইসি (Asaduddin Owaisi) জানান, তিনি অযোধ্যার সিদ্ধান্ত নিয়ে সহমত না। সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তের পর হায়দ্রাবাদের সাংসদ ওয়াইসি বলেন, মুসলিম পক্ষ নিজের অধিকারের জন্য আইনি লড়াই লড়ছিল। উনি বলেন, মুসলিম পক্ষ নিজেদের জন্য নিজেদের পয়সা দিয়ে মসজিদ বানাতে পারে। উনি বলেন, সুপ্রিম কোর্ট সর্বোচ্চ, কিন্তু অব্যর্থ নয়।

AIMIM আসাদউদ্দিন ওয়াইসি অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণার পর বলেন, আমি আইনজীবীদের ধন্যবাদ জানাই। আমি মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের এই কথায় সহমত যে, সুপ্রিম কোর্ট সুপ্রিম, কিন্তু তাঁরা অব্যর্থ না। মুসলিম সমাজ নিজেদের সাংবিধানিক অধিকারের জন্য লড়াই করেছে। আমাদের কোন ভিক্ষার দরকার নেই। আমি নিজের দিক থেকে বলছি যে, পাঁচ একর জমির অফার ফেরত দিয়ে দেওয়া উচিত। উনি আরও বলেন, ফ্যাক্টস এর উপর আস্থার জয় হয়েছে। আর এখন সবথেকে বড় আশঙ্কা যে, সঙ্ঘ এবার কাশী আর মথুরার কথাও তুলবে।

you're currently offline