Press "Enter" to skip to content

ব্রেকিং খবরঃ কালো টাকার মালিকদের মাথায় হাত, এবার সুইস ব্যাংক থেকে তথ্য পাওয়া শুরু করল মোদী সরকার

সুইস ব্যাংকে ভারতীয় অ্যাকাউন্ট হোল্ডারদের তথ্য খুব শীঘ্রই পেতে চলেছে । সুইজারল্যান্ডের আধিকারিকরা এই ব্যাপারে কাজ ও শুরু করে দিয়েছে। সুইস আধিকারিকরা এইচএসবিসি ব্যাংকে থাকা ভারতীয় অ্যাকাউন্ট হোল্ডারদের তথ্য লিখিত সহমতির সাথে দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়েছে। ইংরেজি সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এই সমন্ধ্যে ও ছেপেছে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, আগস্ট ২০০৮ এ সুইস ফেডেরাল কোর্টের একটি আদেশের পর ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে। দেড় মাসে আগে ব্যাক্তিগত ভারতীয় অ্যাকাউন্ট হোল্ডারদের ফেডারেল ট্যাক্স অ্যাডমিনিস্ট্রেসন এর তরফ থেকে একটি নোটিশ পাঠানো হয়েছিল। ওই নোটিশে বলা হয়েছিল, ভারতের তরফ থেকে চাওয়া ব্যাংকের তথ্য দুই দেশের মধ্যে হওয়া সমঝোতার জন্য দিতে বাধ্য থাকবে। ওই নোটিশে ১লা এপ্রিল ২০১১ থেকে সমস্ত রকম তথ্য দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

ওই নোটিশের সাথে সুইস ব্যাংকের ভারতীয় গ্রাহকদের একটি সহমতি পত্রে স্বাক্ষর দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে। ওই পত্রে লেখা আছে যে, ভারতীয় আধিকারিকরা যেই তথ্য চাইছে, সেই তথ্য তাঁরা দেওয়ার জন্য সহমত পোষণ করছে।২০১১ সালে ফ্রান্সের তরফ থেকে ভারতের কাছে সুইজারল্যান্ডের এইচএসবিসি ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট করা ৬২৮ জন ভারতীয়দের নাম পাঠানো হয়েছিল। আর তারপর একটি চাঞ্চল্যকর তথ্যে ২০১৫ সালে আর ১১৯৫ জন ভারতীয়দের নাম সামনে এসেছিল। ওই তথ্যে ২০০৬-০৭ পর্যন্ত সুইস ব্যাংকে ভারতীয় অ্যাকাউন্ট হোল্ডারদের প্রায় ২৫৪২০ কোটি টাকা থাকার তথ্য সামনে উঠে এসেছিল।

ওই তথ্যে বলা হয়েছিল যে, ওই ১১৯৫ জনের মধ্যে ৮৫ জন ভারতেই থাকে আর তাঁদের অ্যাকাউন্টে কমপক্ষে এক মিলিয়ন ডলার আছে। এর আগে খবর শোনা গেছিল যে, ফ্রান্স সরকার এইচএসবি ব্যাংকের আনুমানিক ৭০০ ভারতীয় গ্রাহকদের তথ্য ২০১১ সালের আগস্ট মাসে ভারতের হাতে তুলে দিয়েছিল। আর এরপর বিশ্বের অন্য দেশ গুলোর ব্যাংকে থাকা ভারতীয়দের সমন্ধ্যে তথ্য জানার জন্য সরকার পদক্ষেপ নিয়েছিল।

7 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.