Press "Enter" to skip to content

মুসলিম ভোটব্যাঙ্কে ভরসা শেষ! তাই এবার ইমামদের পর পুরোহিতদেরও ভাতা দেবে তৃণমূল

মুসলিম তোষণ ! এই শব্দটা বারবার শুনতে হয়েছে মমতা ব্যানার্জীকে। বিরোধীরা বিশেষ করে বিজেপি বরাবরই তৃণমূলের (All India Trinamool Congress ) উপরে সংখ্যালঘু তোষণের অভিযোগ এনেছে। বিজেপি এমনও বলেছে যে, রাজ্যে মুসলিমরা যাই করুক মমতা ব্যানার্জী কোন পদক্ষেপ নেন না। মমতা ব্যানার্জীকে বিঁধে রাজ্যে হিন্দুদের উপরে মুসলিমদের করা অত্যাচার নিয়ে বরাবরই সরব হয়েছে বিজেপি। এমনকি বিজেপি এও বলেছে যে, মুসলিমদের তুষ্ট করার জন্যই মমতা ব্যানার্জী মহরমের দিন রাজ্যে দশমি নিষিদ্ধ করেছে, এবং কয়েকটা স্কুলে সরস্বতী পুজাও বন্ধ করা হয়েছে। এছাড়াও মুসলিম ভোট ব্যাঙ্কের জন্য ইফতার পার্টি তে যোগ, হিজাব পড়ে নামাজ পড়া ইত্যাদি ইত্যাদি তো রয়েইছে।

এর আগে মুসলিম ভোট পাওয়ার জন্য রাজ্যে ইমামদের ভাতা দেওয়া শুরু করেছিল মমতা ব্যানার্জীর সরকার। তখনও বিজেপি বারবার তুষ্টিকরণের অভিযোগ তুলেছিল। শেষে মমতা ব্যানার্জী হিন্দু ভোট ধরে রাখতে সাচ্চা হিন্দু সাজতে বসে যান। আর এরজন্য তিনি বিভিন্ন মন্দিরে ঘুরে বেড়ান, এমনকি রাজ্যে কয়েকটি বিশাল মন্দির বানানোর প্রতিশ্রুতিও দেন।

আর এবার মুসলিম ভোট ব্যাঙ্ক এর ভরসা বাদে মমতা সরকার হিন্দু ভোট ব্যাঙ্ক ধরতে মরিয়া হয়েছে। সেই ক্রমেই কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম রাজ্যে অগ্রদানী ব্রাহ্মণদের জন্য ভাতা চালু করার কথা ঘোষণা করেন।

ফিরহাদ হাকিম এর অনুযায়ী, রাজ্যের কেবল অগ্রদানী ব্রাহ্মণ যারা শ্মশানের কাজে যুক্ত, তাঁদের ভাতা দেবে সরকার। কলকাতা পুরসভার অধীনে সাতটি শ্মশান রয়েছে, ঐ শ্মশান গুলোতে মোট ৪৯ জন পুরোহিত শেষকৃত্য সম্পন্নের কাজ করেন। তাঁদের এবার প্রতি শেষকৃত্য পিছু ৩৮০ টাকা করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। তৃণমূলের মতে যদিও এটা শুধু ব্রাহ্মণদের উপকারের জন্য আনা প্রকল্প। কিন্তু বিরোধীদের মতে দিন দিন মুসলিম ভোট ব্যাঙ্ক হারিয়ে যাওয়ার জন্য এবার হিন্দুদের প্রতি মায়া দেখাচ্ছেন মমতা ব্যানার্জী।

 

you're currently offline