Press "Enter" to skip to content

মহারাষ্ট্র সঙ্কটের আজ গুরুত্বপূর্ণ দিন, রাজ্যপালের সাথে দেখা করবে বিজেপি, বিধায়কদের সাথে বৈঠক করবেন ঠাকরে

মুম্বাইঃ মহারাষ্ট্র (Maharashtra) বিধানসভা নির্বাচন ২০১৯ এর ফলাফল ঘোষণা ১৩ দিন পরেও রাজ্যে সরকার গঠন নিয়ে অসামঞ্জস্য বজায় আছে। বিজেপি (BJP) আর শিবসেনা (Shiv Sena) দুই জোট সঙ্গীই মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবি করছে, আরেকদিকে কংগ্রেস-এনসিপি (NCP) সাবধানের সাথে নিজেদের চাল দিচ্ছে। রাজ্য বিজেপির কোর কমিটির বুধবারের বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য শিবসেনার সাথে কোনরকম ভাবে আপোষ করা হবেনা।

রাজ্য বিজেপি সভাপতি চন্দ্রকান্ত প্যাটেল আর সুধীর মুঙ্গটিবার বৃহস্পতিবার রাজ্যপালের সাথে সাক্ষাৎ করবেন। আর এরই মধ্যে শিবসেনা প্রধান উদ্ভব ঠাকরে বৃহস্পতিবার নিজের আবাসে দলের বিধায়কদের সাথে বৈঠক ডেকেছে। এই বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। সুত্র অনুযায়ী, উদ্ভব ঠাকরে এনসিপি-কংগ্রেস এর সমর্থনে সরকার গঠনের লাভ আর ক্ষতি নিয়ে বিধায়ক দলের সাথে চর্চা করবে।

আরেকদিকে ক্ষমতার চাবি নিজেদের হাতে থাকার পরেও এনসিপি নিজের চাল দিচ্ছেনা। আরেকদিকে কংগ্রেসের হাইকমান এর আপত্তির পরেও এক শ্রেণীর নেতারা চাইছে যে, শিবসেনাকে সমর্থন করে তাঁদের সরকার গঠন করা হোক। কংগ্রেস নেতা হুসেইন দলবাই বুধবার শিবসেনা ভবনে গিয়ে সঞ্জয় রাউতের সাথে সাক্ষাৎ করেন, আর বাইরে এসে বলেন যে, এবার বিজেপির সরকার কোন মতেই গঠন হবেনা। বিজেপির থেকে অনেক ভালো শিবসেনা। আর বিজেপি এবং শিবসেনার হিন্দুত্বের মধ্যেও ফারাক আছে।

আরেকদিকে গতকাল বিজেপি নেতা সুধীর মুঙ্গটিবার বলেছিলেন, আপনি যতই চেষ্টা করেন না কেন জলকে কোনদিনও ভাগ করতে পারবেন না। শিবসেনা আর বিজেপি একসাথেই আছে, কৃষকদের ইস্যু নিয়ে আজ আমরা বৈঠক হয়েছে। আমরা খবরের অপেক্ষায় আছি। ভালো খবর যখন তখন আসতে পারে। এরপর শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত বলেন, আমরা রাজ্যপালের সাথে দেখা করেছি। আরপিআই পার্টির রামদাস আটাবলের সাথে সাক্ষাৎ করেছি। বিজেপি নেতারা যদি রাজ্যপালের সাথে দেখা করে সরকার গঠনের দাবি জানায়, তাহলে তাঁদের সরকার গঠন করে ফেলা উচিত। ওঁরা সবথেকে বড় দল। ওঁরা সরকার গড়ার দাবি জানালে আমাদের কোন আপত্তি নেই।

you're currently offline