Press "Enter" to skip to content

ফিরাদ হাকিমের সম্পত্তির বৃদ্ধির পরিমান জানলে চোখ কপালে উঠবে!

রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। এই তৃণমূল কংগ্রেস রাজ্যে শাসক দল হওয়ার আগে অনেকদিন ছিল বিরোধী দলের পদে। সেই সময় তৃণমূল কংগ্রেসের নেতামন্ত্রীদের সম্পত্তি ছিল খুবই সামান্য, একজন সাধারণ মানুষের যা সম্পত্তি থাকে সেরকমই ছিল। কিন্তু রাজ্যের শাসন ক্ষমতায় আসার পর থেকেই হঠাৎ করে তৃণমূলের নেতামন্ত্রীদের সম্পত্তির পরিমাণ বেড়ে গেল। কিছু কিছু নেতানেত্রীর সম্পত্তি এতটাই বেড়ে গিয়েছে যে সেটা সবার ধারণার বাইরে। আজ আপনাদের কাছে এইরকমই একজন নেতার সম্পত্তির পরিমান তুলে ধরব।

শোভন চট্টোপাধ্যায় পদত্যাগ করেছেন দিন কয়েক আগে। তারপর থেকেই কলকাতায় মেয়রের পদটি খালি পড়েছিল‌। তাই মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী কে কলকাতার নুতন মেয়র হিসাবে ঠিক করা হয়েছে। তাই আজ আপনাদের সামনে তুলে ধরব কলকাতার হতে চলা নুতন মেয়রের সম্পত্তির পরিমাণ।

২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে যে বিধানসভা নির্বাচন হয়েছিল সেই সময় ফিরহাদ হাকিম তার সম্পত্তির একটা হিসব জমা দিয়েছিলেন নির্বাচন কমিশন কে। সেই অনুযায়ী তার সম্পত্তি সম্পর্কে আজ জানবো। তবে তার আগে জেনে নেব মন্ত্রী হওয়ার পর প্রথম পাঁচ বছরে তার সম্পত্তি কতগুন বেড়েছিল। ফিরহাদ হাকিম ২০১১ সালে নির্বাচনের সময় কমিশনকে হলফনামা দিয়ে জানিয়েছিলেন যে, তাঁর কাছে রয়েছে মোট ৩ কোটি ৭৭ লাখ ৮০ হাজার ৮৮ টাকার সম্পত্তি।

ঠিক তার ৫ বছর পর অর্থাৎ ২০১৬ সালে যখন দ্বিতীয় বারের জন্য রাজ্যে ক্ষমতায় এলো তৃণমূল কংগ্রেস তখন নির্বাচন কমিশন কে দেওয়া হলফনামায় দেখা গিয়েছে তার সম্পত্তি বেড়েছে একধাক্কায় ২ কোটি টাকার থেকেও অনেক বেশি। সেই সময়ে ফিরহাদ হাকিমের ৪,২৮,৫৪,৮০২ টাকার স্থাবর সম্পত্তির ছিল। আর ১,৬৯,০৮,৩৭২ টাকার ছিল অস্থাবর সম্পত্তি।
#অগ্নিপুত্র