Press "Enter" to skip to content

গতকাল বাংলায় একদিকে তৃণমূলের ব্রিগেড আর অন্যদিকে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিল শতাধিক তৃণমূলকর্মী!

১৯ শে জানুয়ারী ব্রিগেডে সভা করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই সভার মূল উদ্দেশ্য ছিল দেশের মোদী বিরোধী সকল নেতানেত্রীদের একজোট করে মোদীজিকে আক্রমণ করা। কিন্তু সেই পরিকল্পনা পুরোপুরি ভাবে ব্যার্থ হয়েছে কারণ নানান চেষ্টা করেও এইদিনের বিগ্রেড সভা পুরোপুরি ভাবে ভর্তি করতে অক্ষম হয়েছে কংগ্রেস। গ্রাম অঞ্চলের মানুষজনদের বিভিন্নভাবে প্রলোভন দেখিয়ে, ডিম ভাত খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে আনা হয়েছিল এই সভায়। কিন্তু তাতেও মাঠের প্রায় বেশিরভাগ অংশই ফাঁকা থেকে গিয়েছিল।অনেক রাজনৈতিক বিষেজ্ঞরা মনে করছেন কংগ্রেস এই সভা করছেন শুধুমাত্র লোকসভা ভোটে হেরে যাওয়ার ভয়ে। কারণ এই মুহূর্তে রাজ্যের চারিদিকে মোদী হওয়া বইতে শুরু করে দিয়েছে।

তাই তৃণমূল কংগ্রেস ভয় পেয়ে অন্যান্য রাজ্য থেকে লোক জড় করেছিল অর্থাৎ দেশের অন্যান্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের ভাড়া করে এনেছিল যাতে মঞ্চ ভরানো যায়। এটাই সম্পূর্ণ ভাবে তৃণমূলের ভয়ের কারণ লক্ষ্য করা যাচ্ছে কারণ যে রাজ্যে গত লোকসভা নির্বাচনে মাত্র দুই টি আসন পেয়েছিল সেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবার লোকসভা নির্বাচনের আগে অন্যান্য রাজ্যর মন্ত্রীদের ডেকে এনে সভা করছেন নিজের হার বাঁচানোর জন্য। এর থেকে তৃণমূলের ভয়ের ইঙ্গিত স্পষ্টভাবে প্রকাশ পাচ্ছে।

একদিকে যখন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মোদীজির বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ তুলে সুর চড়াচ্ছেন তখন অন্যদিকে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছে তৃণমূলেরই সমর্থকেরা । তৃণমূল কংগ্রেস অন্যান্য রাজ্য থেকে ভাড়া করে আনা নেতানেত্রীদের রাজ্যের মানুষের ট্যাক্সের টাকায় অতিথি আপ্যায়নে ব্যাস্ত। ঠিক সেই সময় তৃণমূলের বিরুদ্ধে নিজেদের ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে পুরুলিয়ার ৩৭ টি পরিবার যোগদান করলেন বিজেপিতে।

এইদিন কুরবান আলী যিনি বিজেপির মাইনরিটি সেলের নেতা উনার হাত ধরে পুরুলিয়ার ২ নং ব্লক এলাকায় থেকে ৩৭ টি পরিবার তৃণমূল ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগদান করলেন।বিজেপিতে যোগ দিয়ে উনারা দাবি করেছেন যে ” আমরা এতদিন তৃণমূল কংগ্রেসের থেকে খুব ভুল করেছি। আমরা তৃণমূল ছেড়ে বহুবার বেরিয়ে আসতে চেয়েছি কিন্তু আমাদের বাঁধা দেওয়া হয়েছে বারবার। তাই এবার সুযোগ পেয়ে আমরা সকলে তৃণমূল কংগ্রেস ত্যাগ করলাম। এবং দেশের মানুষের স্বার্থে, দেশের ভালো কাজ করার উদ্দেশ্যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আদর্শে অনুপ্রাণিত আমরা বিজেপিতে যোগদান করলাম।”
#অগ্নিপুত্র

9 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.