Press "Enter" to skip to content

১০০ গরিব পরিবারকে জোর করে উচ্ছেদ করলো তৃণমূলের এই নেতা। অভিযোগ…

এবার ে উঠল জমি দখল করার অভিযোগ উঠল। অভিযোগ গায়ের জোরে জোর করে জমি দখল করা হয়েছে। ে তৃনমূলের এক কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে উঠল এমন অভিযোগ। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ যে, তিনি লোকজন নিয়ে এসে সেখানকার ১০০ টি পরিবার কে জোরজবরদস্তি উচ্ছেদ করার চেষ্টা করেছেন। এবং তাদের জমিজমা, বাড়ি-ঘর অবৈধভাবে কেড়ে নিতে চেয়েছিলেন। প্রভাসনগর এলাকা যেটি পুরসভার ২৯নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত সেখানে কয়েক বিঘা জমির উপর বসবাস করেন ১০০ টি গরিব পরিবার। তারা মূলত চাষবাস করেই দিন কাটান। তাদের মূল জীবিকা হল কৃষিকাজ। সামান্য ওইটুকু জমি ছাড়া তাদের কাছে থাকার মত আর কিছুই নেই।

কিন্তু শনিবার হটাৎ করেই ১০নং ওয়ার্ডের ের কাউন্সিলার শঙ্কর সাউ যিনি রিষড়া পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান ছিলেন। তিনি সেখানে আসেন অনেক জন লোক নিয়ে এবং সেখানে এসেই তিনি সেখানকার জমিজমা মাপঝোপ করা শুরু করে দেয়। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠে যে তিনি সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দাদের হুমকির শুরে বলেন যে এখানকার জমি খালি করে দিতে হবে।

এই ঘটনার পরই সেই এলাকাভুক্ত মানুষজন প্রতিবাদ শুরু করেন। তারা রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ শুরু করে তারপরই কাউন্সিলার সহ তার সাথে আসা লোকজন এলাকা ছাড়তে বাধ্য হয়। শ্রীরামপুর ২৯নং কাউন্সিলার রাজেশ সিং এর কাছে এলাকাবাসী একটি লিখিত অভিযোগ জানান এই ব্যাপারে। তিনি এলাকাবাসীদের আসস্থ করে বলেন যে কোনোরকম বেআইনি উচ্ছেদ তিনি হতে দেবেন না। তিনি সবসময় এলাকাবাসী দের পাশেই থাকবেন।

ক্ষুব্ধ বাসিন্দাদের তরফে জানানো হয়েছে যে, তারা দরকারে আদালতে অব্দি যেতে রাজি আছেন। পুলিশ কে তারা ইতিমধ্যে জানিয়েছেন। পুলিশ যদি কিছু ব্যাবস্থা না নেন তাহলে তারা আদালতে যাবেন। সব মিলিয়ে ফের আরও একবার জমি বিতর্কে নাম জড়ালো তৃনমূলের নেতার। এই পুরো বিষয়টি নিয়ে আবারও চিন্তা বাড়ল তৃনমূল শিবিরের।
#অগ্নিপুত্র