Press "Enter" to skip to content

ইউরেনিয়াম কান্ডে ধৃতের সাথে যোগযোগ রয়েছে তৃণমূল নেতাদের!!রিপোর্ট জানলে চমকে যাবেন।

গত বুধবার রাতে ১ কে.জি ইউরেনিয়াম সহ পাঁচজন ব্যাক্তি ধরা পরে পুলিশের জালে। তাদের গ্রেপ্তার করার পর জানা যায় যে তাদের মধ্যে এখন ছিলেন বসন্ত সিংহ যার বাড়ি মুর্শিদাবাদে। পুলিশি জেরার সময় তিনি বলেন যে তার বাড়ি বহরমপুরের কাশিমবাজারে। তাকে যখন জেরা করা হয় তখন তিনি দাবি করেন যে শাসক দল তৃনমূলের সাথে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। সেই তদন্তে করতে গিয়ে গোয়েন্দারা বসন্তের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট চেক করেন এবং সেখানে তারা দেখেন যে জেলার কোনো তৃনমূল নেতা বাদ নেই।

সব নেতাদের সাথেই বসন্তের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছবি রয়েছে। তবে সুব্রত সাহা যিনি জেলার সভাপতি তার সাথেই বসন্তের ঘনিষ্ঠতা সবচেয়ে বেশি। এবং প্রাক্তন বিধায়ক ইমানি বিশ্বাসের সাথেও তার অনেক ছবি পাওয়া গেছে।
জানা গেছে কে বসন্তকে মুর্শিদাবাদ জেলার তৃনমূল কর্মী সহ ছোটো বড়ো নেতা সবাই এক ডাকে চিনেন। তাদের মধ্যে থেকেই একজন বলেন যে বসন্ত কে আমরা সবাই সুব্রত সাহা ও অশোষ ঘোষের খুব ঘনিষ্ঠ সঙ্গী হিসাবেই জানি। আরও জানা গেছে যে এই দুই নেতা একমঞ্চে থাকলে বসন্ত সেখানে উপস্থিত থাকবেই। দলেন যে কেনো অনুস্থানে এবং জেলার যে কেনো জায়গায় এই দুই নেতার সাথে তাকে সবসময় দেখা যায় বলেও জানা গেছে। তৃনমূল সভাপতি সুব্রত সাহা যদিও তাকে চেনেন না বলেই দাবি করেছেন।

অন্য এক তৃনমূল নেতা দাবি করেন যে বসন্তের আসল বাড়ি হল বহরমপুরের মধুপুরে কিন্তু তিনি গত কয়েক বছর ধরে কাশিমবাজারে ভাড়া বাড়িতে থাকেন। স্থানীয়রা বলেন যে এই বসন্ত অনেক দিন ধরেই চিটিংবাজি করেন সেই কারনেই তাকে বাড়ি ছাড়া করা হয়েছে তাই এখন কোনো উপায় না দেখে তিনি ভাড়া বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন। তবে জেলার তৃনমূল কর্মীরা তার সাথে জেলার বড় নেতাদের সম্পর্কের কথা শিকার করে নিয়েছেন। বিশেষ করে সুব্রত সাহার সাথে তার অনেক দিনের সুসম্পর্ক রয়েছে বলে তারা জানান। বসন্তের বাড়বাড়ন্তের কারন হিসাবে তারা বলেছেন যে বসন্ত ওই নেতাদের নাম ভাঙিয়েই এই সব কাজকর্ম করে বেড়ান। জেলা সভাপতি সুব্রত সাহা বসন্তের সাথে তার ছবি দেখে মেজাজ হারিয়ে কোনো প্রশ্নের উত্তর দেন নি।
#অগ্নিপুত্র