Press "Enter" to skip to content

দুটি বিধ্বংসী ব্রহ্মস মিসাইলের সফল পরীক্ষণ করল ভারত, ৩০০ কিমি দূরে থাকা নিশানাকে করল ধ্বংস

ভারতীয় বায়ুসেনা সোমবার আর মঙ্গলবার দুটি ব্রহ্মস মিসাইলের সফল পরীক্ষণ করল ভারত। ২১ আর ২২ অক্টোবর এই দুটি ব্রহ্মস মিসাইলের পরীক্ষা করা হয়। এই ব্রহ্মস মিসাইল গুলো ৩০০ কিমি দূরে থাকা নিশানায় একদম সঠিক আঘাত করে ধ্বংস করে দেয়। ভারতীয় বায়ুসেনা আন্দামান নিকোবর এর ট্রাক দ্বীপ থেকে দুই দিনে এই দুটি ব্রহ্মস মিসাইলের পরীক্ষণ করে। স্থল থেকে স্থলে হামলা করার জন্য প্রসিদ্ধ ব্রহ্মস মিসাইল। এটি মধ্যম রেঞ্জের এমন এক সুপারসনিক মিসাইল, যেটি যেকোন প্রকার এয়ারক্রাফট, জাহাজ অথবা ছোট লঞ্চিং প্যাড থেকে ফায়ার করা যায়। শোনা যাচ্ছে যে, সুপারসনিক ব্রহ্মস মিসাইলের এই পরীক্ষণ রুটিন অপারেশন ট্রেনিং এর অংশ ছিল।

এই সুপারসনিক ব্রহ্মস মিসাইল ৩০০ কিমি দূরে থাকা নিজের লক্ষ্যে একদম অভেদ্য নিশানা সাধতে পারে। পিন পয়েন্ট সঠিকতার সাথে স্থলের নিশানাকে ধ্বস্ত করা এই মিসাইল পরীক্ষণ ভারতীয় বায়ুসেনার শক্তি অনেক গুণ বাড়িয়ে দেবে। স্থল থেকে স্থলে লক্ষ্য ভেদ করার মামলায় বায়ুসেনা আগের থেকে অনেক বেশি শক্তিশালী হয়েছে। বর্তমানে চীন আর পাকিস্তানের কাছে এখনো পর্যন্ত এমন মিসাইল নেই যেটা জল, স্থল আর বায়ু এই তিন যায়গা থেকে নিশানা সাধতে পারে। বর্তমানে ভারত আর রাশিয়া মিলে এই মারক মিসাইলের মারক ক্ষমতা আর রেঞ্জ আরও বাড়াতে হাইপারসনিক সিস্টেমে কাজ করছে।

আগামী দিনে ভারত আর রাশিয়া সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইল ব্রহ্মস এর রেঞ্জ ৩০০ কিমি থেকে বাড়িয়ে ৬০০ কিমি করবে। এর ফলে শুধু গোটা পাকিস্তানই এই মিসাইলের রেঞ্জে থাকবে না। অন্যান্য অনেক লক্ষ্য গুলোকে নিমিষেই ধ্বংস করে দেবে এই সুপারসনিক মিসাইল। ব্রহ্মস কম দূরত্বের রেমজেট ইঞ্জিন যুক্ত সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইল। এই মিসাইলকে সাবমেরিন, জাহাজ, যুদ্ধ বিমান অথবা মাটি থেকেও সহজেই ফায়ার করা যায়। ব্রহ্মস মিসাইলকে দিন হোক আর রাত, আর যেকোন আবহাওয়াতেই ফায়ার করা যেতে পারে। আর কোন পরিস্থিতিতেই এই মিসাইলের মারক ক্ষমতা কমে না।

রেমজেট ইঞ্জিনের কারণে এই মিসাইলের ক্ষমতা তিন গুণ বেড়ে যায়। যদি কোন মিসাইলের ক্ষমতা ১০০ কিমি দূর পর্যন্ত থাকে, তাহলে এই রেমজেট ইঞ্জিনের সাহায্যে সেটিকে ৩০০ কিমি দূর পর্যন্ত করা যায়। রাশিয়ার সংস্থা আর ভারতের ডিআরডিও মিলে এই সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইলকে উন্নত করার কাজ করেছে। এই মিসাইল রাশিয়ার পি-৮০০ ক্রুজ মিসাইলের টেকনোলোজির উপর আধারিত। ব্রহ্মস মিসাইলের নাম ভারতের ব্রহ্মপুত্র নদী আর রাশিয়ার মস্কবা নদীর নামে রাখা হয়েছে। এই সুপারসনিক মিসাইলের গতি শব্দের গতির থেকে তিন গুণ বেশি। এই মিসাইল ফায়ার হলে, শত্রুরা বাঁচার জন্য সময় পাবেনা।

 

you're currently offline