Press "Enter" to skip to content

UGC-র পাঠ্যক্রমে বাদ মুঘলরা, মহাভারত-রামায়ণ পড়ানো হবে ইতিহাস হিসেবে! যুক্ত হল বেদ, পুরাণ

নয়া দিল্লীঃ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (University Grants Commission) স্নাতক স্তরে ইতাহাসের নতুন পাঠ্যক্রম প্রকাশ করেছে। আর সে নিয়েই এখন রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে। বহু শিক্ষাবীদ সেই পাঠ্যক্রম দেখে অবাক। কারণ, নতুন পাঠ্যক্রমে , ের কথা উল্লেখ থাকলেও নেই বা ের কথা। নতুন পাঠ্যক্রমে সরস্বতী সভ্যাতারও উল্লেখ রয়েছে নেই তথা মধ্যযুগের

UGC-এর নতুন পাঠ্যক্রমে মারাঠাদে ইতিহাসও বর্ণিত করা হয়েছে ভালো ভাবে। কিন্তু সেই পাঠ্যক্রমে মধ্যযুগকে উপেক্ষা করায় চারিদিকে প্রশ্ন উঠছে। এছাড়াও রামশরণ শর্মা, ইরফান হাবিবদের বই বাদ পড়েছে রেফারেন্স বইয়ের তালিকা থেকে। পাশাপাশি বেদ, পুরাণ, উপনিষদের উপর বিশেষ ভাবে জোর দেওয়া হয়েছে। এবং অনেক হিন্দি ভাষারও বই রয়েছে।

UGC দ্বারা প্রকাশিত এই ৯৯ পাতার পাঠ্যক্রমে অনেকেই RSS এর ছাপ দেখতে পাচ্ছে। নতুন এই পাঠ্যক্রমে বাবরকে হানাদার বলে উল্লেখ করা হয়েছে। সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের দিক থেকে হিন্দুদের স্থাপত্য, হিন্দুদের ীয় মেলা ও তীর্থক্ষেত্রের উপর জোর দেওয়া হয়েছে। পাঠ্যক্রমে হরিকথা, ভজন-কীর্তন এবং বৈদিক মন্ত্রী রয়েছে।

UGC-এর এই পাঠ্যক্রমে রামায়ণ-মহাভারতকে ইতিহাসের অংশ হিসেবে দেখানো নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। ইতিহাস হিসেবে অনৈতিহাসিক ও পৌরাণিক চরিত্র রাখা হয়েছে। তবে বাদ দেওয়া হয়েছে সতীদাহ রদ, ঔপ্নিবেশিক যুগের মুক্ত বাণিজ্য নীতি এবং মধ্যযুগের ইতিহাসের বৈচিত্রময় বহুত্ব।