Press "Enter" to skip to content

মুসলিমদের বিজেপি সমর্থকদের দোকান থেকে কোন সামগ্রী না কেনার ফতোয়া বিধায়কের!

উত্তর প্রদেশের শামলি জেলার কৈরানা থেকে সমাজবাদী পার্টির বিধায়ক নাহিদ হাসান এর বিরুদ্ধে বিজেপির সমর্থকেরা এফআইআর দায়ের করেছেন। আর এর কারণ হল, সমাজবাদী পার্টির বিধায়ক নাহিদ হাসান এলাকার মুসলিমদের বিজেপি সমর্থকদের দোকান থেকে কোন রকম সামগ্রী না কেনার ফতোয়া জারি করেন। মঙ্গলবার পুলিশ এই তথ্য দেয়।

পুলিশ সুপার অজয় কুমার বলেন, একটি বিতর্কিত ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে যে সমাজবাদী পার্টির বিধায়ক নাহিদ হাসান কৈরানা তে বিজেপি সমর্থকদের দোকান বহিস্কার করার জন্য মুসলিমদের আবেদন করছেন। অজয় কুমার বলেন, এই ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, আর এই তদন্তের ভারত এসপি রাজেশ শ্রীবাস্তবের উপর দেওয়া হয়েছে।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, সমাজবাদী পার্টির বিধায়ক নাহিদ হাসানের একটি ভিডিও খুব ভাইরাল হচ্ছে, যেখানে বিধায়ক কৈরানা-র মুসলিমদের বিজেপির সমর্থকদের দোকান থেকে কিছু না কেনার পরামর্শ দিচ্ছেন মুসলিমদের। নাহিদ হাসান বলছেন, ‘বাজারে বিজেপি সমর্থকদের জত দোকান আছে, সেখান থেকে কিছু কিনবেন না। যদি আপনি কিছু কেনেন, তাহলে আমি ঠিক খবর পেয়ে যাব।”

নাহিদের এই বয়ানে সমাজবাদী পার্টির নেতা আজম খানকে প্রশ্ন করা হলে, উনি সাফাই দিয়ে বলেন, ‘এটা খুবই দুঃখজনক ব্যাপার যে এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু এর জন্য দায়ি কে? এর শুরু কে করেছিল?” আজম খান বলেন, ‘বাপু, মৌলানা আজাদ, সরদার প্যাটেল, নেহেরু জি আমাদের ভারতের থাকার জন্য বলেছিলেন। ওনাদের কারণে পাকিস্তানে পালিয়ে যাওয়া মুসলিমেরা এখানে থেকে গেছিল। আজম খান বলেন, বাপু আমাদের ভরসা দিয়েছিল যে, এই রাষ্ট্র যতটা আমাদের ততটা মুসলিমদেরও। কিন্তু এখন কি এমন হচ্ছে?