Press "Enter" to skip to content

অসাধারণ কাজ করে নজির গড়লেন যোগী রাজ্যের মুসলিমরা ! সকল গোহত্যাকারীদের সামাজিক ভাবে বহিস্কার করার সিদ্ধান্ত নিলেন তারা !

একদিকে যখন পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস তোষনের জন্য অবাধ গো-হত্যার অনুমতি দিয়ে রেখেছে ঠিক তখন ের উত্তরপ্রদেশবাসী গো-হত্যার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে নজির গড়লেন। এবার গো-হত্যার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে পঞ্চায়েত ডাকলেন ের গাজিয়াবাদের সমাজের মানুষজন। তারা এই পঞ্চায়েত গঠন করার পর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে, তারা এবার সমাজ থেকে বহিস্কার করবেন গো-হত্যাকারীদের। গত শনিবার দিন সকাল সকাল পঞ্চায়েত ডাকেন রাবলী রোডের সম্প্রদায়ের মানুষজন।

সেই পঞ্চায়েতে সকলে একজোট হয়ে সিদ্ধান্ত নেন যে, যদি কেউ গো-হত্যার করে বা কোনো ব্যাক্তি গো-হত্যা করার চেষ্টা করে ধরা পড়ে তাহলে সেই সকল ব্যাক্তিদের সমাজ থেকে বহিষ্কার করে দেওয়া হবে। এছাড়াও এইদিনের এই বৈঠকে তারা সকলে মিলে আরও একটা সিদ্ধান্ত নিয়ে বিশেষ নজির গড়েন, সেটা হল গো-হত্যার সাথে আর কোনো সম্পর্ক রাখবে না মুসলিম সম্প্রদায়ের কোনো ব্যাক্তি।

হাজি তৌহিদ হাসান যিনি হলেন এই এলাকার একজন বিশিষ্ট ব্যাক্তি উনি এইদিন জানিয়েছেন যে, মুরাদনগরকে একতার প্রতীক হচ্ছে এলাকার হিন্দু ও মুসলিম ধর্মের মানুষের মধ্যে সম্পর্ক। আমরা একে অপর কে ভাই এর চোখে দেখি। একে অপরের সাথে মিলেমিশে থাকতে ভালোবাসী। কিন্তু আমাদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করতে চাইছে সমাজের কিছু কুৎসিত মানুষজন। তারা গো-হত্যা করে আমাদের এই সুন্দর সমাজ যে কুলষিত করার চেষ্টা করছে।

তাই এইদিন আমরা পঞ্চায়েত গঠন করে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলি যে, এবার থেকে মুসলিম সম্প্রদায়ের কোনো ব্যাক্তি যদি গো-হত্যা করে বা গো-হত্যায় সাথে জড়িত হয় তাহলে সেই ব্যাক্তি সহ তার সমগ্র পরিবার কে সমাজ থেকে বহিস্কার করা হবে। আর এই বহিস্কারের পর কোনো মুসলিম ব্যাক্তি সেই পরিবারের সাথে কোনো রকম যোগাযোগ রাখবে না।
#অগ্নিপুত্র

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.