Press "Enter" to skip to content

সামনে এলো ভিডিও- সিংহের মতো দৃঢ় রয়েছে ভারতমাতার পুত্র, গোপন তথ্য প্ৰকাশ করতে স্পষ্ট অস্বীকার করলেন কামান্ডো অভিনন্দন।

আজ পাকিস্থান ভারতে হামলা করার জন্য ৩ টি f-16 পাঠিয়েছিল। ভারতীয় বায়ুসেনা পাকিস্থানের বিমানকে ট্রেস করে ফেলে। পাকিস্থানের জেটকে কাউন্টার করার জন্য উইং কামান্ডোর অভিনন্দন MIG-21 নিয়ে উড়ান দেয় এবং ১ টা পাকিস্তানি জেটকে ফায়ারিং করে মাটিতে নামিয়ে দেয়। যা দেখে পাকিস্থানের বাকি ২ টি জেট পলায়ন করে। কিন্তু দুর্ভাগ্যক্রমে MIG-21 তে যান্ত্রিক গোলযোগ সৃষ্টি হয় যার জন্য কামান্ডোর অভিনন্দনকে প্যারাসুট নিয়ে এমারজেন্সি ল্যান্ডিং করতে হয়। প্যারাসুট নিয়ে নামাকালীন উনি দুর্ভাগ্যবশত পাকিস্থানের।প্রান্তে পড়েন এবং এখন উনি পাকিস্থানের কবজায় রয়েছেন।

পাকিস্থান উনাকে ভারতের হাতে তুলে দিতে বাধ্য। অবশ্য এক্ষেত্রে ১০ দিন মতো সময় লাগতে পারে। কিন্তু আন্তর্জাতিক নিয়ম মেনে কামান্ডোর অভিনন্দনকে ভারতের হাতে তুলে দিতে বাধ্য পাকিস্থান। তবে এটাও সত্য যে পাকিস্থান উনার উপর অত্যাচার করবে এবং ভারতের গোপন তথ্য বের করার চেষ্টা করবে।পাকিস্থান একটা ভিডিও রিলিজ করেছে, যদিও ভিডিওটা শুধুমাত্র পুরো বিশ্বকে দেখানোর জন্য।

ভিডিওটি প্রকাশ করে পাকিস্থান এটা বিশ্বকে দেখাতে চেয়েছে যে তারা জেনেভা কনভেনশন এর পালন করছে।  অর্থাৎ আন্তর্জাতিক নিয়মের পালন করছে এবং বন্দির উপর অত্যাচার করছে না।পাকিস্থানে যে ভিডিওটি প্রকাশ করেছে সেটা নিশ্চয়ই দেখেছেন। যদিও ভিডিওটি ইচ্ছা করেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিয়েছিল পাকিস্থান।ভিডিওতে পাকিস্থানের মেজর আমাদের উইং কামান্ডোরের থেকে প্রশ্ন করছে। পাক মেজর আমাদের কামান্ডোরকে জিজ্ঞাসা করছে যে নাম কি, উনি ভারতের কোন প্রান্তে থাকেন,বিবাহিত কিনা ইত্যাদি। এই সমস্থ প্রশ্নের উত্তর আমাদের উইং কামান্ডোর দিয়ে দেন। এরপর পাক মেজর উনাকে মিশন এবং ভারতীয় সেনার ব্যাপারে প্রশ্ন করে

তখন সবক্ষেত্রে উইং কামান্ডোর উত্তর দিতে অস্বীকার করেন। বীরপুত্র উইং কামান্ডোর স্পষ্টভাবে মিশন ও সেনার ব্যাপারে বলতে অস্বীকার করেন। ভিডিওটি মনযোগ দিয়ে দেখুন। এটাই ভারতীয় সেনা, একদম দেশভক্ত ভয়হীন বীর সৈনিক। পাকিস্থান আমাদের এই সৈনিককে অত্যাচার করবে কিন্তু উনার শক্তিশালী হৃদয়কে ভাঙতে পারবে না।

10 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.