Press "Enter" to skip to content

পাকিস্তানের F-16 ধ্বংস করা পাইলট অভিনন্দন ফিরলেন দেশের সেবায়, পোস্টিং হল এই যায়গায়

ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান (Abhinandan Varthaman)কে  রাজস্থানের সুরতগড় (Suratgarh) বায়ুসেনা বেসে পোস্টিং করা হল। পাকিস্তান থেকে ফেরত আসার পর উনি এই প্রথম পোস্টিং পেলেন। এবছরের ২৭ ফেব্রুয়ারি ওনাকে পাকিস্তানি সেনা বন্দি বানিয়ে নিয়েছিল। প্রায় ৬০ ঘণ্টা শত্রুদেশে থাকার পর উনি ভারতে ফিরে আসেন।

ভারতে ফিরে আসার পর উনি শনিবার প্রথম ডিউটিতে যোগ দেন। এটাই প্রথমবার না যে, ওনার পোস্টিং রাজস্থানে করা হল। এর আগেও বিকানেরে ওনার পোস্টিং করা হয়েছিল। প্রাক্তন বায়ুসেনা আধিকারিক এর পুত্র অভিনন্দন বর্তমান তাঁর পিতার পোস্টিংয়ের সময় এখান থেকেই পড়াশুনা করেছিলেন তিনি।

যদিও বায়ুসেনার উইং কম্যান্ডার অভিনন্দনের বর্তমান পোস্টিং নিয়ে সম্পূর্ণ তথ্য পাওয়া যায়নি। এক আধিকারিক জানান, ‘ সমস্ত ডিফেন্স পোস্টিং গোপনীয় হয়, আমরা শুধু এতুকুই বলতে পারি যে, উইং কম্যান্ডার অভিনন্দনের পোস্টিং রাজস্থানে করা হয়েছে। এরথেকে বেশি তথ্য আমরা দিতে পারব না।”

আরেকদিকে সুরতগড়ের স্থানীয় সূত্র জানায়, অভিনন্দন বায়ুসেনা বেসে এসেছিল। এক আধিকারিক জানান, ‘ সুরতগড় এয়ার ফোর্স বেসে মিগ-২১ বাইসন আছে। কিন্তু এই সময় এটা পরিস্কার না যে, অভিনন্দনকে বিমান ওড়ানোর সুযোগ দেওয়া হবে কি না। কারণ প্রোটোকল অনুযায়ী, পাইলট বিমান থেকে ইজেক্ট হওয়ার পর তাঁকে গ্রাউন্ডের কাজে লাগিয়ে দেওয়া হয়। যদিও অভিনন্দনের ব্যাপারে এই প্রোটোকল ভাঙাও যেতে পারে।”

সপ্তাহ খানেক আগেই ওনার এক ভিডিও সামনে এসেছিল, যেখানে তিনি জম্মু-কাশ্মীরে নিজের সঙ্গীদের সাথে ছবি তুলছিলেন। অভিনন্দনের বন্ধুদের মধ্যে তাঁর সাথে ছবি তোলার হিড়িক পড়ে গেছিল। ওই ভিডিওতে অভিনন্দকে তাঁর বন্ধুদের সাথে বায়ুসেনার ড্রেসেই দেখা গেছিল। আর ওনার গোঁফ আগের থেকে অনেক বড় দেখাচ্ছিল। বায়ুসেনার উইং কম্যান্ডার অভিনন্দকে যুদ্ধকালীন বীরতা পুরস্কার ‘বীর চক্র” দেওয়ার জন্য সুপারিশ করা হয়েছে।