Press "Enter" to skip to content

আরো এক বিশ্ব রেকর্ড গড়তে চলেছে ভারত ! ভারতবাসী পেতে চলেছে বিশ্বের উচ্চতম ব্রিজ ” চেনাব ব্রিজ “। Bengali News

বড় খবর : মোদী সরকার ভারতবাসীকে উপহার দিচ্ছেন বিশ্বের সবথেকে উচ্চতম ব্রিজ –  

সর্দার প্যাটেলের মূর্তির পর এবার আরো একটা বড়ো উপহার দিতে চলছে মোদী সরকার। দেশের বিকাশে ব্রেক না লাগিয়ে ২০১৯ এ আরো একটা বড়ো চমৎকার প্রজেক্ট সম্পুর্ন করে ভারতবাসীকে দিতে চলেছে মোদী সরকার । ভারতীয় রেলওয়ে বিশ্বের সবথেকে উঁচু রেল ব্রিজ তৈরি করার কাজ করছিল যা এবার প্রায় সম্পুর্ন হওয়ার মুখে। এই ব্রিজ জম্মু শ্রীনগর ও বারাপুলা রেলওয়ে লাইনের অংশ। এই ব্রিজে যাতায়াত শুরু হওয়ার পর জম্মু ও কাশ্মীরের মধ্যে দূরত্ব ৬ ঘন্টা কমে যাবে। এখন জম্মু থেকে শ্রীনগর যাওয়ার জন্য সড়কের রাস্তায় ১৩ ঘন্টা সময় লাগে। এই ব্রিজের উচ্চতা ৩৬৯ মিটার হবে। এই ব্রিজ প্যারিসের আইফেল টাওয়ারের থেকেও ৩৫ মিটার উঁচু হবে। জানিয়ে দি, আইফেল টাওয়ার ৩২৪ মিটার উঁচু।

শুধু উচ্চতায় এই চেনাব ব্রিজের বৈশিষ্ট নয়, বরং এই ব্রিজ রিখটার স্কেলের ৮ তীব্রতাকে সহন করতে পারবে।
২৬০ কিমি/ ঘন্টার গতিতে আসা হওয়াকে এই ব্রিজ সামলে দিতে পারবে। এই ব্রিজের নির্মাণ খরচ ১২৫০ কোটি টাকা। এমনিতে জম্মু কাশ্মীরে বহু বছর ধরে ধ্বংস ও সন্ত্রাসের ছবি দেখা যায়।

Chenab Bridge, Bridge on Chenab River, Chenab River Railway Arch Bridge
, চেনাব ব্রিজ

তবে এবার জম্মু কাশ্মীরে সৃষ্টির ছবি দেখা যেতে শুরু হয়েছে। খুশির খবর এই যে এই ব্রিজ ২০১৯ সালের মে মাসে সম্পূর্ন হতে চলেছে। কঙ্কান রেলওয়ের হাত ধরে AFCONS Construction কোম্পানি এই কাজ সম্পূর্ন করছে। প্রায় ১৩০০ কর্মী ও ৩০০ জন ইঞ্জিনিয়ার এই কাজ সম্পূর্ন করার জন্য রাত দিন লাগাতর নিজেদের নিয়োজিত করেছে।

২০১৯ এ এটা সম্পূর্ন হলে ভারতীয়দের জন্য একটা বড়ো উপহার হিসেবে সামনে আসবে। উল্লেখ্য চেনাব ব্রিজ তৈরি করা খুবই কঠিন একটা কাজ ছিল কিন্তু সরকারের তীব্র প্রচেষ্টার দরুন এবার ব্রিজ সম্পূর্ণ হওয়ার মুখে।