Press "Enter" to skip to content

ভারতবর্ষে গরু পাচারকারীদের যোগী আদিত্যনাথ দিলেন এক বড়সড় হুঁশিয়ারি ! বললেন..

বর্তমান সমাজে দিনের পর দিন গরু পাচার বেড়েই চলেছে। অনেক আইন করে দেওয়ার পরেও কোনো ভাবে এটা আটকানো যাচ্ছে না। এই সাধারন মানুষের দৈনন্দিন জীবনে অনেক রকম ভাবে কাজে লাগে। শুধু তাই নয় ,এটা প্রতিটি ব্যক্তির জানা যে জন্মের পর শিশুরা মা এর ছাড়া কেবলমাত্র গরুর দুধ পান করতে পারে, তাই গরু আমাদের মা এর সমান।   বর্তমান কেন্দ্র তথা গরু পাচার বন্ধ করতে বিভিন্ন উদ্দ্যোগ নিলেও, গরুপাচার এখনো রমরমিয়ে চলছে !গরু রক্ষার জন্য যোগী আদিত্যনাথ আরও একবার তাদেরকে হুঁশিয়ারি দিলেন যারা এই সমস্ত কাজকর্মের সাথে যুক্ত ! উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেন যে, এই গরু পাচার করা বা গোহত্যা কোনো মতেই গ্রহণযোগ্য নয়। এটা হিন্দু ধর্মের বিশ্বাস এর বিষয়।হিন্দুরা গরুকে গোমাতা হিসাবে পুজো করেন। তাই গরু পাচার করা হলে সেটা হিন্দু ধর্মের বিশ্বাসের উপর আঘাত করা হবে। আর এই ভাবে কাউকে তার ধর্মের ব্যাপারে আঘাত করা উচিৎ নয়। উত্তরপ্রদেশ সরকার কোনো ভাবেই এটা মেনে নেবেন না।

তাই মুখ্যমন্ত্রী আদিত্যনাথ বলেন যে উত্তরপ্রদেশে গোহত্যা এবং গরু পাচারের অনুমতি কোনো পরিস্থিতিতে কোন মতেই কাউকে দেওয়া হবে না।তাকে জিজ্ঞাসা করা হয় যে অবাধ্য গরুর কারণে ফসলের ক্ষতি হচ্ছে সে বিষয়ে তিনি বলেন যে গরুর কারনে কোনো ভাবেই ফসলের ক্ষতি হচ্ছে না যদি সেটা হত তাহলে এবছর রেকর্ড পরিমাণে ফসল উৎপাদন হল কি করে। চাষিরা কেমন করে এত লাভবান হল।

যদি সেইরকম কিছু ঘটনা ঘটতো তাহলে চাষিরা সবার প্রথমে সরকারের কাছে অভিযোগ জানাতো কিন্তু এমন কোনো অভিযোগ আমরা পাই নি। শুধু মাত্র নিজেদের সুবিধার জন্য কিছু মানুষ এসি ঘরে বসে এই সব মিথ্যা কথা ছড়াচ্ছেন। তাই তিনি পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দেন যে এই সব মিথ্যা মন্তব্যে কেউ কান দেবেন না। সঙে তিনি এটাও বলেন যে সুবিধালোভীরা যতই চেষ্টা করুক উত্তরপ্রদেশ সরকার কোনো ধর্মকে আঘাত করে কোনো দিন গরু পাচার বা গোহত্যার অনুমতি দেবেন না।
#অগ্নিপুত্র