Press "Enter" to skip to content

অমর বলিদানি চন্দন গুপ্তাকে বিশেষ সন্মান দিলেন যোগী সরকার! কাশগঞ্জ এ তৈরি হবে চন্দন চক।

সবাই ভুলে গেলেও আমরা ভুলবো না!
উত্তরপ্রদেশের চন্দন গুপ্তার আজ প্রথম বলিদান দিবস। আজকের দিনেই অর্থাৎ ২৬ শে জানুয়ারি আগের বছর কট্টরপন্থীরা রাষ্ট্রবাদী যুবক চন্দন গুপ্তাকে হত্যা করেছিল। ২০১৮ সালের ২৬ শে জানুয়ারি চন্দন গুপ্তা প্রজাতন্ত্র দিসব উপলক্ষে তেরঙা যাত্রা করেছিল। কট্টরপন্থী প্রবন এলাকা দিয়ে এই তেরঙা যাত্রা যাওয়ার সময় চন্দন গুপ্তাকে হত্যা করা হয়। আজ চন্দন গুপ্তার প্রথম বলিদান দিবস, আজ সে আমাদের মধ্যে নেই। কিন্তু রাষ্ট্রবাদের জন্য প্রাণ বলিদান দিয়ে সে তার প্রেরণা সকল রাষ্ট্রবাদীকে দিয়ে গেছে।

যুবা বলিদানি চন্দন গুপ্তার সন্মান যোগী সরকারও করেছে। চন্দন গুপ্তাকে সন্মান জানানোর জন্য যোগী সরকার স্থানীয় কাশগঞ্জ প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছিল। বলিদানি রাষ্ট্রবাদী চন্দন গুপ্তাকে সন্মান জানানোর জন্য কাশগঞ্জের একটা চকের নাম চন্দন গুপ্তা চক রাখার সিধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও যোগী সরকার চন্দন গুপ্তার পরিবারের একজনকে সরকারি চাকরি দেওয়ার ঘোষণা করেছে।

আজ সোশ্যাল মিডিয়াতেও দেশের রাষ্ট্রবাদী ও হিন্দুত্ববাদীরা চন্দন গুপ্তার বলিদানকে স্মরণ করেছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন ধরণের ম্যাসেজ, পোস্ট চন্দন গুপ্তার স্মরণে করা হয়েছে।

চন্দন গুপ্তা একজন যুবা বলিদানি ছিলেন যিনি ভারত মাতার তেরঙার জন্য , ভারতের পতাকার মানের জন্য কট্টরপন্থী বহুল এলাকায় নিজের প্রাণ দিয়েছেন। চন্দন গুপ্তা যখন প্রাণ ত্যাগ করছিলেন তখন তার মুখে শেষ শব্দ ছিল ভারত মাতা কি জয়।চন্দন গুপ্তার বলিদানি দিবস হিসেবে আজ আমরা India rag এর তরফ থেকে উনাকে প্রণাম জানাই এবং ভগবানের কাছে প্রার্থনা করি উনার পবিত্র আত্মার শান্তির জন্য। চন্দন গুপ্তা অমর রহে, ভারত মাতার জয়।

7 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.