Press "Enter" to skip to content

কট্টরপন্থীদের বড়ো ঝটকা দিলো যোগী সরকার! ৭ টি অবৈধ মাজার ভেঙে গুড়িয়ে সাফ করলো যোগী আদিত্যনাথের সরকার।

মুসলিম ভোটের লোভে যে কাজ যাদব করতে পারেননি সে কাজ করে দেখাচ্ছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। নিজেকে কৃষ্ণের বংশধর বলে দাবি করা অখিলেশ যাদব মুসলিম ভোট ব্যাঙ্কের সৎ কাজ করতে পারেননি ঠিকই। কিন্তু যোগী আদিত্যনাথ কড়া হাতে তীব্র বিরোধিতা থাকা সত্তেও লাগাতার কাজ করে চলেছেন। ২০১৫ সালে কোর্ট সরকারকে নির্দেশ দিয়েছিল হিন্দুদের পবিত্র শহর মথুরাতে গড়ে উঠা অবৈধ মাজার(িক সমধিস্থল) ভেঙে সাফ করার জন্য। কিন্তু সরকারে যেহেতু অখিলেশ যাদব বসেছিলেন তাই ১ টাও অবৈধ মাজার ভাঙা হয়নি। ইসলামের নাম নিয়ে মাজার গুলি তৈরি করেছিল কট্টরপন্থীরা। মথুরার ইসলামিকরুন ও জমি কব্জা করার জন্যই এই মাজারগুলি বানিয়েছিল কট্টরপন্থীরা। আসার পর এখন মথুরার অবৈধ মাজার ভাঙার পক্রিয়া শুরু হয়েছে।

যোগী সরকার অবৈধ মাজার(ইসলামিক সমধিস্থল) ভেঙে মথুরার পবিত্রতা বজায় রাখার কাজ শুরু করে দিয়েছে। মথুরায় গোবর্ধন পর্বতের আসে পাশে থাকা মাজারগুলিকে ধ্বংস করার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। যোগী সরকসর গোবর্ধন পর্বতের পাশে থাকা অবৈধ মাজার ধ্বংস করতে শুরু করেছে। এর ফলে একদিকে যেমন শহরের পবিত্রতা বজায় থাকবে তেমনি জমি অবৈধ কবজার হাত থেকে রক্ষা পাবে।

মাজারগুলি অবৈধভাবে হিন্দু ধর্মস্থানের আশেপাশে তৈরি করা হয়েছিল জমির ইসলামিকরুন করার জন্য এবং মূর্খ হিন্দুদের থেকে টাকা আদায় করার জন্য। কিন্তু এখন যোগী আদিত্যানাথ কার্যবাহী শুরু করে দিয়েছেন এবং ৭ টি মাজার ভেঙে ফেলেছেন। যোগী আদিত্যানাথ হিন্দুদের পবিত্র শহর মথুরা থেকে সমস্থ মাজার সাফ করার সিধান্ত নিয়ে ফেলেছেন।যোগী সরকারের এই কাজের পর উত্তরপ্রদেশের কট্টরপন্থীদের রাটোর ঘুম উড়ে গেছে।

যোগী আদিত্যানাথ ের নির্দেশ মেনে শহর জুড়ে গড়ে উঠা অবৈধ মাজারগুলিকে ভাঙতে শুরু করে দিয়েছেন।আপাতত ৭ টি অবৈধ মাজার ভেঙে সাফ করে দেওয়া হয়েছে। যোগী সরকারের এই কাজ অত্যন্ত স্বাগতযোগ্য কাজ কারণ এত বছর ধরে যা কোনো সরকার করতে পারেনি তাই করে দেখাচ্ছেন যোগী আদিত্যানাথের সরকার। শুধু অখিলেশ যাদব নয়, অনেক ি শাসিত রাজ্য এখনো অবধি অবৈধ মাজার ভাঙার সাহস করেনি। অন্যদিকে যোগী আদিত্যানাথ তীব্র বিরোধিতা সত্ত্বেও অবৈধ মাজার ভাঙতে শুরু করে দিয়েছেন। যোগী আদিত্যানাথের এই কাজ এখন দেশজুড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় চর্চার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।