Press "Enter" to skip to content

প্রয়াগরাজ নিয়ে যারা বলছে নামে কি যায় আসে, তাদের মা বাবা উনাদের নাম রাবন বা দুর্যোধন কেন রাখেনি: যোগী আদিত্যানাথ।

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যানাথ ের নাম ফিরিয়ে দিয়েছেন। ইসলামিক আতঙ্কবাদীরা ের নাম পরিবর্তন করে এলহাবাদ করে দিয়েছিল। এরপর সেকুলারবাদীরা বহুদিন ধরে নাম পরিবর্তন করতে দেয়নি, কিন্তু যোগী আদিত্যানাথ এসে প্রয়াগকে তার অতীতের গৌরব ফিরিয়ে দিয়েছেন। এই ঘটনায় একদিকে যেমন দেশের রাষ্ট্রবাদীরা খুশি ব্যাক্ত করেছিল তেমনি দেশের তথাকথিত বুদ্ধিজীবী, বামপন্থী ও সেকুলারবাদীরা এই নিয়ে তীব্র বিরোধ প্রকাশ করেছে। কিছু বুদ্ধিজীবী আদালতে গিয়ে নাম পরিবর্তনের বিরুদ্ধে পিটিশন পর্যন্ত দায়ের করেছে।

এতে অবশ্য যোগী আদিত্যানাথের কোনো যায় আসেনা। বুদ্ধিজীবীরা এলাহাবাদ হাইকোর্টে এই নিয়ে পিটিশন দায়ের করার পর এখন নাম পরিবর্তনের নিয়ে নান তর্ক দিতে শুরু করেছে।
কেউ বলছেন নামে কি যায় আসে, কেউ বলছেন নাম বদল করা উচিত নয় এটা মুঘল সম্রাটদের দেওয়া। প্রসঙ্গত জানিয়ে দি, বুদ্ধিজীবী ও বামপন্থীরা মুঘল অনুপ্রবেশকারী চোরদের সম্রাট বলে সম্বোধন করে।

তবে আজ যোগী আদিত্যানাথ এই বুদ্ধিজীবী ও বামপন্থী মানসিকতার ব্যাক্তিদের যোগ্য জবাব দিয়েছেন। যোগী আদিত্যানাথ বলেছেন, যে ব্যাক্তির প্রয়াগরাজের নাম পরিবর্তন নিয়ে প্রশ্ন করছে তাদের বাবা মা তাদের নাম রাবন বা দুর্যোধন কেন রেখে দেয়নি। যোগী আদিত্যানাথ বলেন, নাম অনেককিছু বহন করে, নাম অতীতের গৌরবশীল ঐতিহ্যকে বহন করে।

যোগী আদিত্যানাথ তথাকথিত বুদ্ধিজীবীদের প্রশ্ন করেছেন তাদের নাম নিয়ে যখন সমস্যা থাকে না তাহলে তাদের মা, বাবা কেন রাবন বা দুর্যোধনের নামে তাদের নাম রাখেনি। জানিয়ে দি যোগী আদিত্যানাথ একটু অন্য ধরনের নেতা, উনি বিজেপি নেতা কম হিন্দু নেতা বেশি। যোগী আদিত্যানাথের সরকার উত্তরপ্রদেশে ১৯ জেলার ইসলামিক নাম মুছে দিয়ে নতুন নামকরণ করবেন বলেও জানা গিয়েছে।