Press "Enter" to skip to content

রামমন্দির নিয়ে যোগী আদিত্যানাথের বড়ো মন্তব্য: “ধর্মের জন্য বলিদান দিতে প্রস্তুত হয়ে যান “

আজ দেশের সুপ্রিমকোর্টের জাজ আরো একবার দেশের হিন্দুদের আস্থার সাথে খেলা করেছে। মাসের পর শুনানির তারিখ আসার পর আজ ৩ মিনিটে আরো ৩ মাস শুনানি পিছিয়ে গেছে রামমন্দির ইস্যু। ৩ মিনিটে কখনো মামলার শুনানি হয়না, এটা পরিষ্কার যে জাজরা আগে থেকে সিধান্ত করে এসেছিল যে রামমন্দিরের শুনানি ৩ পিছিয়ে দিতে হবে। কংগ্রেসের ঘনিষ্ট উকিলেরা আজ সমস্থদিক থেকে হিন্দুবিরোধে সফল হয়েছে। আজ জাজেরা এই মামলার পরবর্তী শুনানি জানুয়ারি মাসে করা হবে বলে জানিয়েছে। তবে জানুয়ারি মাসে যে সিধান্ত জানানো হবে এমনটা নয় বরং জানুয়ারিতে আবার বলা হবে যে পরবর্তী শুনানির তারিখ কবে। সোজা কথায় এই শুনানির নামে নাটক চলতেই থাকবে। আদালতের জাজেরা হিন্দুদের ন্যায় দিতে সক্ষম নয় এটা আজ সাফ হয়ে গেছে এখন শুধু কেন্দ্র সরকার শেষ ভরসা।

এই টান টান পরিস্থিতির মধ্যে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যানাথ বড়ো মন্তব্য করেছেন। বলেছেন ধর্মের জন্য বলিদান দিতে প্রস্তুত থাকুন। যোগী আদিত্যানাথের এই মন্তব্য কোনো ছোট খাটো ব্যাপার নয়, এটা খুবই একটা বড় মন্তব্য করে দিয়েছেন উনি। এটা হিন্দুদের জন্য একটা সংকেত দিয়েছেন যোগী আদিত্যানাথ। তিনি বোঝাতে চেয়েছেন যদি সুপ্রিম কোর্টের পর কেন্দ্র সরকার কিছু না করতে পারে তাহলে উত্তরপ্রদেশে সরকার ব্যবস্থা নেবে। যোগী আদিত্যানাথ বিজেপি নেতা কম একজন হিন্দু নেতা বেশি।

তাই রামমন্দির ইস্যুকে এত সহজে হিন্দুদের হাত থেকে হাতছাড়া হতে দেবেন না। যোগী সরকার উত্তরপ্রদেশের জমি অধিগ্রহণ করার ক্ষমতা রাখে কারণ এটা সরকারের একটা অধিকারের মধ্যে পড়ে। এখন কেন্দ্রও যদি অধ্যাদেশ না আনতে পারে বা বিরোধিরা সমর্থন না করে তাহলে যোগী আদিত্যানাথ হবে হিন্দুদের সর্বশেষ ভরসা। যোগী আদিত্যানাথ ধর্মের জন্য বলিদান হতে প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানিয়ে দিয়েছেন অর্থাৎ এবার যোগী রামমন্দির তৈরির জন্য ডাক দিয়ে দিয়েছেন।

জানিয়ে দি, যোগী আদিত্যানাথ একবার বলেছিলেন যে উনি ক্ষমতার লোভে রাজনীতিতে আসেননি বরং সেবা ও ধর্ম রক্ষার জন্য রাজনীতিযে নেমেছেন। রামমন্দিরের কাজে তিনি কখনো পিছুপা হবেন না বলেও জানিয়েছিলেন, এখন সেই কাজে নেমে পড়েছেন আদিত্যানাথ।