Press "Enter" to skip to content

যোগী আদিত্যনাথের চলন্ত গাড়ি দেখে ডাক দেন এই বৃদ্ধা মহিলা, তারপর যোগীজি যা করলেন তা আপনার মন জয় করবে।

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যানাথ যিনি দেশে প্রধানমন্ত্রী মোদীর পর দ্বিতীয় সবথেকে জনপ্রিয় নেতা। আদিত্যানাথ যোগী গোরক্ষনাথ ধামের সবথেকে মহন্ত এবং একজন হাট যোগী একথা সকলেই জানেন। কিন্তু আজ যোগী আদিত্যানাথের এমন এক ঘটনা জানাব যে রূপ আপনারা যোগীজির দেখেননি। এই ঘটনার পর আপনারও বুঝতে পারবেন যে যোগী আদিত্যানাথ সাধারণ মানুষের জন্য শুধু মুখ্যমন্ত্রী নন বরং একজন সেবক। ঘটনাটি ১৬ জুলাইয়ের , যেদিন যোগী আদিত্যানাথ গোরক্ষনাথ সাংকৃত বিদ্যাপীঠে ভূমি পূজন করার পর ফিরে যাচ্ছিলেন। মুখ্যমন্ত্রীর কাফিলা রাস্তায় এগিয়ে যাচ্ছিল সেই সময় এক বৃদ্ধ মহিলা উনাকে ডাকতে শুরু করেন।

আওয়াজ শোনার পরেই মুখ্যমন্ত্রীর কাফিলা দাঁড়িয়ে যায় এবং যোগী আদিত্যানাথ নিজের গাড়ি থেকে নেমে ওই বৃদ্ধ মহিলার কাছে যান। একটা ডাকে মুখ্যমন্ত্রী গাড়ি থেকে নেমে তার কাছে চলে আসা দেখে মুখ্যমন্ত্রী ভাবুক হয়ে পড়েন এবং যোগীজির হাত ধরে কাঁদতে শুরু করেন। আসলে যোগী আদিত্যানাথ মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার আগে উনি গোরক্ষপুর থেকে সাংসদ ছিলেন যার কারণে উনি এই এলাকার মানুষদের খুব কাছের মনে করেন।

এই এলাকার প্রত্যেকে জনমানুষের সুখ দুঃখকে নিজের মনে করে তাদের কাছে ভাগিদারী হতে ক্যাহ্ন যোগীজি। এমনকি যোগীজির প্রতি গোরক্ষপুরের মানুষের অনেক সন্মান রয়েছে। যেভাবে যোগীজি ওই বৃদ্ধা মহিলার কাছে যান তা প্রদর্শন করে যে , আপনি যত বড়ই পদে থাকুন না কেন জনতার থেকে বড় হওয়ার অধিকার আপনার নেই।

হ্যাঁ দেশে এমন অনেক নেতা রয়েছে যারা নিজেদের সুখের অনেক বেশি খেয়াল রাখেন এবং শাসকের আসনে নিজেকে চিটিয়ে রাখেন। এই ঘটনা খবরে ছাপার পর মুখ্যমন্ত্রীর আধিকারিক টুইটার হ্যান্ডেল থেকেও টুইট করা হয়েছিল।