Press "Enter" to skip to content

পুরুলিয়ায় বিজেপির কর্মী সমর্থকদের দেবতুল্য বলে সম্বোধন করলেন যোগী আদিত্যনাথ, কারণ জানলে আপনি গর্ব করবেন

আজ গণতন্ত্র বাঁচাও সভায় পুরুলিয়ায় বক্তব্য রাখলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী । পশ্চিমবঙ্গে এটাই ওনার প্রথম সভা। এর আগে সরকারের ষড়যন্ত্রে তিনটে সভা বাতিল হয়েছে ওনার। কোথাও হেলিকপ্টার নামতে দেয়নি, তো কোথাও ওনার সভা স্থল জলে ভর্তি করে ওনার সভা বাতিল করা হয়েছে।

আজও হয়ত পুরুলিয়ায় ওনার সভা হতনা। বাঁকুড়ায় হেলিকপ্টার না নামতে দিয়ে ওনার সভা আগেই বাতিল করেছিল প্রশাসন। আর পুরুলিয়াতেও ওনার হেলিকপ্টার নামার অনুমতি ছিল না। কিন্তু যোগীও ছাড়বার পাত্র নহে। তাই মমতা ব্যানার্জীকে টেক্কা দিয়ে পুরুলিয়া বাদে পাশের রাজ্যে হেলিকপ্টার ল্যান্ড করিয়ে সড়ক পথে পুরুলিয়ায় এসে সভা করে গেলেন উনি।

সভায় লোক ছিল দেখার মত। যতই হোক যোগী আদিত্যনাথ বলে কথা। আর ভারতের এখন সবথেকে জনপ্রিয় মুখ্যমন্ত্রী ও উনি। ওনার জনপ্রিয়তা প্রধানমন্ত্রীর পরেই। কদিন আগে একটি সমীক্ষায় দেখানো হয়েছে যে যোগী আদিত্যনাথ মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে এখনো সবার সেরা। আর যোগী আমলে উত্তরপ্রদেশের প্রায় ৬০ শতাংশ মানুষ খুব খুশি। আর নাখুশি হল মাত্র ১৫ শতাংশ মানুষ।

আজকের সভার শুরু থেকেই মমতা ব্যানার্জীর বিরুদ্ধে একের পর এক কামান দাগেন উনি। সভার শুরুতে উনি রামকৃষ্ণ দেব এবং স্বামী বিবেকানন্দর উপমা টেনে সবার মন জয় করে নেন। এরপর ভারতের জাতীয় সঙ্গীত এবং ভারতের জাতীয় গীত লেখার জন্য রবিন্দ্রনাথ ঠাকুর ও ঋষি বঙ্কিমচন্দ্র কে প্রণাম জানান।

উনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর বিরুদ্ধে রাজ্যে অপশাসন চালানোর জন্য ওনাকে আক্রমণ করেন। উনি এরাজ্যে পঞ্চায়েত ভোটের নামে বিজেপি এবং তৃণমূল বিরোধী অন্য দলের কর্মী সমর্থকদের হত্যা করার জন্য নিন্দা করেন। এমনকি উনি নিজের রাজ্যের প্রসঙ্গ টেনে এনে বলেন, ‘ ভারতের সবথেকে বড় রাজ্য উত্তরপ্রদেশ, যেখানে শুধু লোকসভা আসনই হল ৮০ টি। কিন্তু সেখানে পঞ্চায়েত নির্বাচন ও পৌরসভা নির্বাচনে খুন তো দূরের কথা একটা কোথাও মারপিট ও হয়নি”

যোগী আদিত্যনাথ এরাজ্যের শাসন ব্যাবস্থার অবনতির জন্য মমতা ব্যানার্জীর সরকারকে দোষ দেন। এমনকি ওনার সভা বারবার পণ্ড করার জন্যও মমতা ব্যানার্জীকে আক্রমণ করতে ছাড়েন নি। এরপর উনি ভারতীয় জনতা পার্টির কর্মী সমর্থকদের প্রণাম জানান।

ভারতীয় জনতা পার্টির কর্মী সমর্থকদের প্রণাম জানিয়ে উনি বলেন, ‘তোমরা এত অত্যাচার সহ্য করার পরেও এত রক্ত ক্ষরণের পরেও দলকে ভালোবেসে আমাদের সমর্থন করে জাচ্ছ। এরজন্য তোমরা দেবতুল্য” যোগী আদিত্যনাথ এরাজ্য থেকে মমতা ব্যানার্জীর স্বৈরাচারী সরকার হটিয়ে বিজেপির সরকার গড়ার সংকল্প নেন।

8 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.