Press "Enter" to skip to content

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এমন পদক্ষেপ নিলেন, যার ফলে মাথায় হাত পড়ল অখিলেশ-মায়াবতীর

আগামী লোকসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে সব বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দল গুলোই নিজেদের নানারকম ভোজবাজি শুরু করেছে। আরেকদিকে রাজনীতির চাণক্য বলা বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ ও সবরকম প্রয়াস করছেন।  বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ এর প্রতিটা পদক্ষেপই বিজেপির জন্য রামবান এর কাজ করে। আর সেই ক্রমেই উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ও একটি বড় পদক্ষেপ নিতে চলেছেন। আসুন দেখে নিন কি করতে চলেছেন উনি?

সম্প্রতি উত্তর প্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ সরকার একটি বড় ঘোষণা করেছে। সরকার জানায় যে লোকসভা নির্বাচনের আগে মুজফরনগরে হওয়া দাঙ্গার মামলা থেকে প্রায় ৩৮ টি কেস তুলে নেওয়া হবে। উত্তর প্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ সরকার যদি এমন কিছু করেন, তাহলে প্রায় ১০০ এর থেকে বেশি অভিযুক্তের উপরে দায়ের করা মিথ্যে মামলা তুলে নেওয়া হবে।

যখন মুজফরনগরে দাঙ্গা হয়েছিল, তখন উত্তর প্রদেশে অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টির সরকার চলছিল। এমন শোনা যায় যে, তখন সমাজবাদীর পার্টির অখিলেশ সরকার দ্বারা অনেক নির্দোষ হিন্দুদের বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা চাপান হয়েছিল। সেটা আজও চলছে।

যদি যোগী আদিত্যনাথের সরকার এই পদক্ষেপ নেয় তো, অনেক নির্দোষ হিন্দু মিথ্যে মামলা থেকে মুক্তি পাবে। আর এটার সরাসরি লাভ বিজেপিরই হবে। আর এটার ক্ষতি সমাজবাদী পার্টির হবে। উত্তর প্রদেশে সমাজবাদী পার্টি আর বহুজন সমাজ পার্টির জোট আগেই হয়ে গেছে। আর ের এই পদক্ষেপের ফলে চরম সঙ্কটে পরতে চলেছে সপা বসপা জোট।

এবার আপনারাই বলুন যোগী আদিত্যনাথ সরকারের এই পদক্ষেপ কি ঠিক? আপনারা যদি সহমত হন, তাহলে আমাদের অবশ্যই বলুন। আর এই খবরটি শেয়ার করুন এবং আমাদের নিউজ ফলো করুন। ধন্যবাদ।

7 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.